তেলাপিয়া মাছ খাওয়ার আগে সাবধান! এই মহিলার সঙ্গে যা হল … শুনে আঁতকে উঠবেন

   

বাংলাহান্ট ডেস্ক : বাঙালির সাথে মাছের সম্পর্ক চিরকালই উত্তম-সুচিত্রার জুটির মতো। মাছ ছাড়া বাঙালির ভুরিভোজ কল্পনাও করা যায় না। কিন্তু এমন কখনও শুনেছেন কি মাছ খেয়ে হারাতে হয়েছে হাত-পা? সম্প্রতি এমনই একটি চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটেছে ক্যালিফোর্নিয়া (California) শহরের এক মহিলার সাথে।

এই মহিলা তেলাপিয়া মাছ খেয়ে হারালেন নিজের দু’ হাত, দু’ পা। তবে জানা গেছে ওই মহিলা রান্না না করে কাঁচা তেলাপিয়া মাছ খেয়েছিলেন। ওই মহিলার বন্ধু জানিয়েছেন, শরীরে ব্যাকটেরিয়া প্রবেশ করে এই ঘটনা ঘটেছে। মার্কিন সংবাদপত্রের রিপোর্ট অনুযায়ী, ওই মহিলা গত এক মাস ভর্তি ছিলেন হাসপাতালে।

আরোও পড়ুন : দার্জিলিং তো অনেকবারই গেলেন! এবার ঢুঁ মারুন এই পাহাড়ি গ্রামে, গেলেই পাবেন স্বর্গীয় তৃপ্তি

এরপর বৃহস্পতিবার ৪০ বছরের বারাজাসের জীবনদায়ী অস্ত্রপচার করা হয়। লরার বন্ধু অ্যানা মেসিনা বলেছেন, আমরা আতঙ্কিত এই ঘটনায়। এমন ঘটনা আমাদের সাথেও যে কোনও দিন ঘটতে পারে। বারাজাস ওই তেলাপিয়া মাছগুলো কেনেন সান জোসের একটি বাজার থেকে। এরপর তিনি তার বান্ধবী অ্যানা মেসিনার সাথে মাছগুলি খান। 

আরোও পড়ুন : ১ বা ২ নয়, ৪২ কোটি! লটারিতে লক্ষীলাভ ৭৭ বছরের বৃদ্ধর, কিনলেন শুধুই তরমুজ আর ফুল

মনে করা হচ্ছে ওই মাছগুলি বারাজাস ভালো করে রান্না করেননি। মাছগুলি খাওয়ার পর অসুস্থ হয়ে পড়েন দুই বন্ধুই। তবে গুরুতরভাবে অসুস্থ হন বারাজাস। মেসিনার কথায়, প্রবল শ্বাসকষ্ট দেখা দেয় তার বান্ধবীর। কালো হয়ে যেতে শুরু করে তাঁর আঙুল, পায়ের পাতা, ঠোঁট। বিকল হতে শুরু করে কিডনি।

সেপসিস দেখা দেয় শরীরে। চিকিৎসকেরা জানাচ্ছেন, মারণ ব্যাকটেরিয়া ভিব্রিয়ো ভালনিফিকাস প্রবেশ করেছিল বাজারাসের শরীরে। সাধারণত কাঁচা সামুদ্রিক খাবার ও সমুদ্রের জল থেকে এই ধরনের ভাইরাস শরীরে প্রবেশ করতে পারে। যদি সামুদ্রিক খাবার ঠিকমতো রান্না ও সিদ্ধ না করা হয়, তাহলে এই ধরনের রোগের ঝুঁকি বাড়ে।

california woman has all four limbs amputated as a result of bacterial infection from eating talapia

বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক নাতাশা স্পটিসউড জানাচ্ছেন, “এই ধরনের ব্যাকটেরিয়ার শরীরে প্রবেশ ঘটে সামুদ্রিক খাবার থেকে। শরীরের কোনও ক্ষত বা ট্যাটু থাকলে তার সংস্পর্শে এসে এই ব্যাকটেরিয়াগুলি জীবাণুর আকার ধারণ করতে পারে।” তবে এই খবর সামনে আসার পর থেকেই শুধু বিদেশ নয়, এদেশেও চর্চা শুরু হয়ে গিয়েছে।

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর