মুসলিম হয়ে হিন্দু ছেলের সঙ্গে প্রেম করার শাস্তি! বোনকে কুপিয়ে নৃশংস ভাবে খুন করল দুই দাদা

বাংলাহান্ট ডেস্ক: ভালবাসা মানে না কোন বয়স, মানে না জাতপাত। ঠিক যেমনভাবে গাজিয়াবাদের মেয়েও শিবাও প্রেমের সম্পর্কে আবদ্ধ হবার সময় কোন ধর্মের কথা মাথাতেও আনেনি। আর সেই কারণেই বোধহয় জীবন দিয়ে মাশুল দিতে হলো এই মেয়েকে। দুই ভাই বাইকে করে ঘুরতে নিয়ে যাওয়ার নাম করে নৃশংসভাবে হত্যা করল তাদের বোনকে।

   

গাজিয়াবাদে সম্মান রক্ষার্থে খুন হওয়ার এই ঘটনা ইতিমধ্যে শোরগোল ফেলে দিয়েছে সারা ভারতে। শ্বাসরোধ করে খুন করার পর বোন শিবার দেহ গঙ্গানাহারের গঙ্গায় ফেলে দিয়েছে অভিযুক্তরা। ইতিমধ্যেই দুজনকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। এখন ডুবুরিদের সাহায্য নিয়েই দেহ উদ্ধার করার চেষ্টা করছে পুলিশ।

আরও পড়ুন: নিন্দুকদের বুড়ো আঙ্গুল, এবার বাদাম কাকুর ঘরে নয়া চাকরি, আমূল বদলে গেল ভুবন বাদ্যকর জীবন

ঘুরতে নিয়ে যাওয়ার নাম করে তারা বোনকে শাহদারা থেকে গঙ্গানাহারে নিয়ে আসে। সূত্রের খবর, শনিবার সন্ধ্যায়, পুলিশের দল যখন ওই এলাকায় টহল দিতে যাচ্ছিল, তখন তারা উভয় যুবককে সন্দেহজনক অবস্থায় দেখতে পায়। পুলিশ গাড়ি থামিয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে প্রথমে তারা পুলিশকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করে। তবে শেষ পর্যন্ত আসল সত্য জানাতে তারা একরকম বাধ্য হয়।

img 20231218 140812

নৃশংস খুনের ঘটনা শুনে রীতিমত হকচকিয়ে যান পুলিশকর্মীরাও। অভিযুক্ত সুফিয়ান ও মেহতাব জানান, ‘নাবালিকা বোনের একটি হিন্দু ছেলের সাথে সম্পর্ক ছিল। বিষয়টি জানতে পেরে আমরা তাকে ওই ছেলেটির সাথে দেখা করতে নিষেধ করি। কিন্তু সে হিন্দু ছেলেকে বিয়ে করার জন্য জোর করছিল। এ নিয়ে পরিবারে ক্ষোভ ছিল।’

সম্পর্কিত খবর