মহিলা প্লেয়ারদের উপর হামলা! ভারত চ্যাম্পিয়ন হলেও ট্রফিতে ভাগ বসাল বাংলাদেশ, চরম নাটক ঢাকায়

   

বাংলা হান্ট ডেস্ক: ফুটবল (Football) হোক কিংবা ক্রিকেট (Cricket) খেলার মাঠ, কিছু কিছু ম্যাচে বিভিন্ন নাটকীয় মুহূর্ত ঘটে। যেগুলি রীতিমতো অবাক করে দেয় প্রত্যেককেই। তবে, এবার যা ঘটেছে তা কার্যত ভেঙে দিয়েছে সমস্ত নজির। শুধু তাই নয়, ক্রীড়া বিশেষজ্ঞরাও শেষ কবে এহেন বিষয় পরিলক্ষিত করেছেন তা মনে করতে পারছেন না। মূলত, বাংলাদেশে অনূর্ধ্ব-১৯ মেয়েদের সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের (SAFF U19 Women’s Championship Final 2024) ফাইনালে একের পর এক চমক ঘটল।

সবথেকে অবাক করা বিষয় হল, ওই ম্যাচে ভারতকে চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করা হলেও শেষমেষ ট্রফিতে ভাগ বসাল বাংলাদেশিরা। হ্যাঁ, প্রথমে বিষয়টি জেনে অবাক হলেও ঠিক এই ঘটনাই এবার ঘটেছে। যার জেরে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে উঠে এসেছে বৃহস্পতিবারের ওই ম্যাচ। মূলত, ম্যাচ কমিশনারের একটি ভুলেই ভারতকে চ্যাম্পিয়ন থেকে হতে হল যুগ্ম বিজয়ী। এমতাবস্থায়, জেনে নিন ঠিক কি ঘটেছে সেই ম্যাচে।

https://twitter.com/Ranjeet_Singh03/status/1755604179350147565?ref_src=twsrc%5Etfw%7Ctwcamp%5Etweetembed%7Ctwterm%5E1755604179350147565%7Ctwgr%5Ebe07d80b00d8067b363f57a91e26cdca6ef4ada0%7Ctwcon%5Es1_&ref_url=https%3A%2F%2Fzeenews.india.com%2Fbengali%2Fsports%2Findia-and-bangladesh-declared-joint-champions-of-saff-u19-womens-championship_507487.html

উল্লেখ্য যে, গত বৃহস্পতিবার রাতে ঢাকার বিএসএসএসএমকে স্টেডিয়ামে, অনূর্ধ্ব-১৯ মেয়েদের সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল ম্যাচ ছিল। এমতাবস্থায়, নির্ধারিত সময় পর্যন্ত ওই খেলার ফলাফল ছিল ১-১। ম্যাচের আট মিনিটে শিবানী দেবীর গোলে ভারত এগিয়ে গেলেও নির্ধারিত সময়ের একেবারে শেষ মুহূর্তে এসে সাগরিকার গোলে ভারত-বাংলাদেশের স্কোর হয় ১-১। এরপরেই টাইব্রেকারে খেলা পৌঁছলেও সেখানেও ফলাফল চূড়ান্ত হয়নি। কোনো দল পেনাল্টি মিস না করায় স্কোর হয় ১১-১১।

আরও পড়ুন: “১,০০০ বার বলুন জয় শ্রী রাম”, এবার বড়সড় প্রতিক্রিয়া শামির, কড়া ভাষায় দিলেন বিতর্কের জবাব

তখন, টস করে বিজয়ীর নাম বেছে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন ম্যাচ রেফারি। তারপরেই টসে জিতে যায় ভারত এবং শুরু হয় সেলিব্রেশন। তবে, সেখানেই ঘটে বিপত্তি। ওই মুহূর্তে আচমকাই গ্যালারি থেকে ভারতীয় ফুটবলারদের লক্ষ্য করে শুরু হয়ে যায় বোতলবৃষ্টি। মুহূর্তের মধ্যেই অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে বিএসএসএসএমকে স্টেডিয়াম। এমনকি, পরিস্থিতি এতটাই বেগতিক হয়ে যায় যে, পরিস্থিতি সামাল দিতে মাঠে নামে পুলিশ। এমনকি, বাংলাদেশের ফুটবল আধিকারিকরাও ক্ষোভে ফেটে পড়েন।

আরও পড়ুন: রেলের বড় পদক্ষেপ! যাত্রীদের নিরাপত্তা বৃদ্ধিতে পাল্টানো হল ২৩,০০০ ICF কোচ, পরিবর্তে পরিষেবায় LHB কোচ

এমতাবস্থায়, রেফারিকে আলাদা করে ডেকে কথাও বলেন তাঁরা। ভুল বুঝতে পারেন ম্যাচ রেফারি ও ম্যাচ কমিশনার। উল্লেখ্য যে, ফুটবলের নিয়ম অনুযায়ী ট্রাইব্রেকারে ফলাফল চূড়ান্ত হলে খেলা গড়াবে সাডেন ডেথে। কিন্তু সেই নিয়মকে রীতিমতো ভুলে গিয়ে করা হয় টস। রেফারি জানান, দুই দলের ফুটবলারদের আবার মাঠে নেমে পেনাল্টি শ্যুটআউটে অংশগ্রহণ করতে হবে। এমনকি, রেফারি এটাও জানান, তাঁর সিদ্ধান্তের আধ ঘণ্টার মধ্যে ভারতের খেলোয়াড়রা মাঠে না নামলে ট্রফি তুলে দেওয়া হবে বাংলাদেশের হাতেই। তারপরে ভারতের জন্য দু’ঘণ্টা অপেক্ষা করা হয়। তবে, শেষপর্যন্ত ভারত না আসায় দুই দেশকেই যুগ্ম বিজয়ী ঘোষণা করা হয়। যা অনন্য এক নজির হয়ে থাকল।

Sayak Panda
Sayak Panda

সায়ক পন্ডা, মেদিনীপুর কলেজ (অটোনমাস) থেকে মাস কমিউনিকেশন এবং সাংবাদিকতার পোস্ট গ্র্যাজুয়েট কোর্স করার পর শুরু নিয়মিত লেখালেখি। ২ বছরেরও বেশি সময় ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর