বিষ প্রয়োগের পর ফের বড় ঝটকা, এবার দাউদের বিরুদ্ধে কড়া অ্যাকশন নিল ভারত! ঘুম উড়ল ডনের

বাংলা হান্ট ডেস্ক : গত সোমবারই রটে যায়, গুরুতর অসুস্থ দাউদ ইব্রাহিম (Dawood Ibrahim)। অসুস্থ অবস্থায় তিনি ভর্তি রয়েছেন করাচির একটি হাসপাতালে। যদিও পরে দাউদের ডান হাত নামে পরিচিত ছোটা শাকিল জানায়, দাউদের কিছুই হয়নি। দাউদ সত্যিই ঠিক আছেন কি না সেই সত্যতা যাচাই করা না গেলেও তার মুম্বাই ভিত্তিক সম্পত্তি যে আর তার দখলে রইলনা সেকথা সত্য।

   

সম্প্রতি খবর মিলেছে, মুম্বাই এবং রত্নাগিরিতে দাউদের যে সম্পতি রয়েছে তা নিলামে (Auction) তোলা হবে। ২০২৪ সালের ৫ জানুয়ারি এই নিলাম অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে। তার আগে জানিয়ে রাখি, আন্ডার ওয়ার্ল্ড ডন দাউদ ইব্রাহিমের সম্পত্তি Forex Act-র (ফেমা) অধীনে বাজেয়াপ্ত করা হয়েছিল। মাদক মামলায় বাজেয়াপ্ত হয়েছিল এই সম্পত্তি। আর এবার সেই সম্পত্তিকেই নিলামে তোলা হবে।

সূত্রের খবর, মহারাষ্ট্রের রত্নাগিরিতে দাউদের বাংলো এবং আমের বাগান নিলাম করা হবে। রত্নাগিরির মোট ৪টি সম্পত্তি নিলাম করা হবে। বৈদেশিক মুদ্রা ম্যানিপুলেটর (SAFEMA) দাউদের সম্পদ নিলাম করবে। জানিয়ে দিই, এর আগেও SAFEMA মুম্বাইয়ে দাউদের সম্পত্তি নিলাম করেছিল।

আরও পড়ুন : তৃণমূলের বাদের খাতায় ৯০ বিধায়ক! অভিষেক মডেল লাগু হলেই বাদ মদন, ফিরহাদরা

এর আগে ২০০০ সালে আয়কর বিভাগের তরফ থেকে দাউদের মোট ১১টি সম্পত্তিকে নিলামে তোলা হয়। তবে সেই সময় কেউই ঐ নিলাম অনুষ্ঠানে আসেনি। কিন্তু গত কয়েকবছরে দাউদের সম্পত্তিতে দারুণ আগ্রহ দেখাচ্ছে আম জনতা। ২০১৮ সালে নাগপাড়ায় একটি হোটেল, একটি গেস্ট হাউস এবং দাউদের একটি বিল্ডিং বিক্রি করা হয়েছিল। একই সঙ্গে দক্ষিণ মুম্বাইয়ে দাউদের বোন হাসিনা পারকারের ফ্ল্যাটটিকেও নিলামে বিক্রি করেছে তদন্তকারী সংস্থা।

আরও পড়ুন : একদিকে টেট অন্যদিকে ধর্মীয় সভা-মিছিল! পরীক্ষার্থীদের বিশেষ পরামর্শ দিলেন ট্রাফিক পুলিশ

gettyimages 90509276 770x433

এরপর ২০২০ সালের ডিসেম্বরে রত্নগিরির দুটি প্লট এবং একটি পেট্রল পাম্প বিক্রি হয়েছিল। যার তৎকালীন মূল্য ছিল প্রায় ১.১০ কোটি টাকা। খেদ তালুকের লোটে গ্রামে দাউদের বোন হাসিনা পারকারের নামে এই সম্পত্তিগুলি নথিভুক্ত করা হয়েছিল বলে খবর। আর এবার নিলামে উঠবে মুম্বাই ও রত্নগিরির বাংলো।