আক্রান্ত ED কর্তাদের বিরুদ্ধেই FIR! এবার কলকাতা হাই কোর্টের হস্তক্ষেপ চাইল কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা

বাংলা হান্ট ডেস্ক : লোকসভা নির্বাচন (Lok Sabha Election) শিয়রে। আর তার আগেই একটার পর একটা চমকপ্রদ সব ঘটনা ঘটে চলেছে এই রাজ্যে। বিশেষ করে সন্দেশখালির (Sandeshkhali) ঘটনা সমস্ত পুরনো বিতর্কে ছাপিয়ে একেবারে শীর্ষে জায়গা করে নিয়েছে। চলতি মাসের প্রথম দিকে রেশন দুর্নীতি (Ration Scam) মামলার তদন্ত করতে গিয়ে তৃণমূল নেতা শেখ শাহজাহানের (Sheikh Shahjahan) অনুগামীদের হাতে আক্রান্ত হন ইডি (Enforcement Directorate) কর্তারা। বিষয়টি নিয়ে ইডি মুখ খুলতেই পাল্টা অভিযোগ দায়ের হয় ইডির বিরুদ্ধেই।

   

সূত্রের খবর, তদন্ত করতে যাওয়া ঐ ইডি অফিসারদের বিরুদ্ধেই পুলিশ এফআইআর দায়ের করেছে। আর তাই এবার সন্দেশখালির (Sandeshkhali) ঘটনায় কলকাতা হাইকোর্টের (Calcutta High Court) হস্তক্ষেপ চাইল কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। সেই সাথে ইডির (Enforcement Directorate) অভিযোগ, তাদের কাজে বাধা দেওয়ার জন্য এবং হেনস্থা করার জন্য নতুন নতুন সমস্যা তৈরি করা হচ্ছে।

এইদিন ইডি-র সমস্ত বয়ান শুনে মামলা দায়ের করার অনুমতি দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি জয় সেনগুপ্ত। চলতি সপ্তাহেই মামলাটির শুনানির সম্ভাবনা। মিডিয়া সূত্রে জানা যাচ্ছে, চলতি মাসেই এই মামলাটির শুনানি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গত শুক্রবার উত্তর ২৪ পরগণার সন্দেশখালিতে পৌঁছায় ইডির দল। কেন্দ্রীয় বাহিনী সাথে থাকলেও সেখানে গিয়ে চরম বিপাকে পড়েন তারা।

আরও পড়ুন : ফের একবার খারিজ হল বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের নির্দেশ, প্রাথমিক নিয়োগ দুর্নীতির মামলায় বড় খবর

তৃণমূল নেতা শাহজাহান শেখের বাড়িতে ঢোকার চেষ্টা করতেই নেতার অনুগামীরা ঘিরে ধরেন তাদের। সেই সাথে লাঠি, ঢিল, ইঁট পাথর নিয়ে ছুটে আসে শ খানেক গ্রামবাসী। মারধর করে মাথা ফাঁটিয়ে দেওয়া হয় ইডি কর্তাদের। গাড়ির কাঁচ ভেঙে হাতিয়ে নেওয়া হয় ইডির ল্যাপটপ, মোবাইল এবং ব্যাগ। পাঁচ জন ইডি কর্তার মধ্যে তিনজনের আঘাত ছিল যথেষ্ট গুরুতর। একজনের মাথায় তো ছ’টা সেলাই অবধি পড়েছে বলে খবর।

আরও পড়ুন : অভিষেকের কেন্দ্রে বড় বিস্ফোরণ, জখম নাবালককে নিয়ে গোপনীয়তা! বিঁধলেন শুভেন্দু

ঘটনার জেরে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে রাজ্যের রাজনৈতিক মহল। তারপরেই ইডির বিরুদ্ধে এফআইআর নথিভুক্ত করেছে ন্যাজাট থানার পুলিশ। মিডিয়া সূত্রে খবর, ইডির বিরুদ্ধে এই অভিযোগটি দায়ের করেছে শেখ শাহজাহানের কেয়ারটেকার। সেই সাথে আরেকটি পৃথক অভিযোগ দায়ের করেছে ইডি। সেই সাথে সরকারি কর্মীদের কাজে বাধা, ভাঙচুর ও সংবাদমাধ্যমের কর্মীদের ওপর হামলার অভিযোগে অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে অপর একটি অভিযোগ দায়ের করে ন্যাজাট পুলিশ।

সম্পর্কিত খবর