১১ হাজার কর্মী নিয়োগ! উচ্চমাধ্যমিক পাসে রেলে চাকরির দুর্দান্ত সুযোগ! আজই করে ফেলুন আবেদন

বাংলা হান্ট ডেস্ক : রাজ্যের চাকরিপ্রার্থীদের জন্য একটি দারুন সুবর্ণ সুযোগ। ভারতীয় রেলওয়েতে (Indian Railways) কয়েক হাজার কর্মীকে নিয়োগ (Recruitment) করা হবে। কিভাবে আবেদন করতে হবে , কী যোগ্যতা লাগবে ইত্যাদি বিস্তারিত আপডেটটি জানতে আজকের প্রতিবেদনটি পড়ুন।

   

পশ্চিমবঙ্গের চাকরিপ্রার্থীদের জন্য দারুন খুশির খবর। ভারতীয় রেলওয়েতে ১১ হাজার শূন্যপদে কর্মী নিয়োগ করা হবে। প্রার্থীদের নিয়োগ করা হবে ভ্রমণ টিকিট পরীক্ষক পদে। এই বিষয়ে ইতিমধ্যেই রেলওয়ে বোর্ডের তরফ থেকে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে যে খুব শীঘ্রই ভ্রমণ টিকিট পরীক্ষক পদের জন্য যোগ্য প্রার্থীদের বেছে নেওয়া হবে। কেন্দ্র থেকে জানানো হয়েছে টিকিট পরীক্ষক ছাড়াও রেলওয়েতে টিকিট কালেক্টর পদের জন্য প্রার্থী বাছা হবে। দুই পদের ক্ষেত্রেই যোগ্যতা সহ ,মোট শূন্যপদ কত , প্রার্থীরা আবেদন জানাবেন কিভাবে , তা বিস্তারিত তথ্য এই প্রতিবেদনে তুলে ধরা হলো।

আবেদন যোগ্যতা – রেলের তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে , এখানে আবেদনকারী প্রার্থীদের বয়সসীমা ১৮ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে হতে হবে। এছাড়া আবেদনকারীকে ন্যূনতম ৫০ শতাংশ নাম্বার সহ দ্বাদশ শ্রেণীতে উত্তীর্ণ হতে হবে। এই যোগ্যতা অর্জনকারী যেকোনো ব্যাক্তি আবেদন করতে পারবে।

আরও পড়ুন : ‘বাংলায় মিড ডে মিলে ৪ হাজার কোটির দুর্নীতি, CBI তদন্ত হলেই…’! সংসদে বিস্ফোরক ধর্মেন্দ্র প্রধান

মোট শূন্যপদ – কেন্দ্র থেকে অফিসিয়াল নোটিশ প্রকাশ করা না হলেও , ভ্রমণ টিকিট পরীক্ষকের জন্য ১১ হাজার শূন্যপদ থাকতে পারে বলেই সূত্রের খবর। খুব শীঘ্রই এই বিষয়ে রেলওয়ে বোর্ড নোটিশ জারি করবে।

আরও পড়ুন : ফের বাজিমাত করল ইসরো, চন্দ্রযানের একটা অংশ ফিরিয়ে আনা হল পৃথিবীতে! তাজ্জব বিশ্ব

মাসিক আয় – রেলওয়েতে টিটিই পদে নিয়োগ প্রার্থীদের ৯৪০০ থেকে ৩৫০০০ টাকার মধ্যে মাসিক বেতন দেওয়া হবে। প্রার্থীরা গ্রেড পে ১৯০০ টাকা করে পাবেন। এর সঙ্গে টিটির পরিবারের জন্য থাকবে বিনামূল্যে রেল ভ্রমণের সুযোগ। এছাড়াও , দৈনিক ভাতা , বাড়ি ভাড়া ভাতা সহ অনান্য সুযোগও পাবেন।

Indian Railways has issued a notification for recruitment

নিয়োগ পদ্ধতি – টিটি পদে চাকরি পাওয়ার জন্য প্রথমে আবেদন জানাতে হবে। একটি লিখিত পরীক্ষা নেওয়া হবে। তাতে মোট নম্বর হবে ১৫০। লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলে তাদের একটি শারীরিক ফিটনেসের পরীক্ষা নেওয়া হবে। এরপরে যোগ্য ব্যাক্তিদের নাম ফাইনাল করে মেরিট লিস্টে প্রকাশ করা হবে। বিস্তারিত আরো আপডেট জানতে রেলের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে নজর রাখুন।