নতুন বছরে বড় “উপহার” পেল এই দেশ! খোঁজ মিলল বিশাল সোনার ভাণ্ডারের

বাংলা হান্ট ডেস্ক: বিশ্বজুড়ে নতুন বছরের সেলিব্রেশনের আবহেই এবার একটি বড় খবর সামনে এসেছে। এই প্রসঙ্গে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী জানা গিয়েছে যে, সৌদি আরবের (Saudi Arabia) মক্কা নগরীতে সোনার বিশাল ভাণ্ডারের সন্ধান মিলেছে। ইতিমধ্যেই সৌদি আরবের মাইনিং কোম্পানি ম্যাডেন এই তথ্য জানিয়েছে। সংশ্লিষ্ট মাইনিং কোম্পানির মতে, নতুন এই আবিষ্কারটি বর্তমানে মনসুরা মাসারা সোনার খনির চেয়ে ১০০ কিলোমিটার পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে।

   

এদিকে, ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম X-এ ম্যাডেনের তরফে এই সন্ধানের বিষয়ে জানানো হয়েছে। পাশাপাশি, সংস্থার প্রধান কর্মকর্তা রবার্ট উইল্ট জানিয়েছেন, “এই আবিষ্কার সৌদি আরবে খনিজ সম্পদের অব্যবহৃত সম্ভাবনার একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রদর্শন এবং সৌদির অর্থনীতির তৃতীয় স্তম্ভ হিসেবে খনিকে প্রতিষ্ঠিত করেছে।”

প্রচুর লাভ মিলবে: তিনি আরও বলেন যে, “এই আবিষ্কারটি এটাও স্পষ্ট করে যে, সৌদি আরবের একটি সোনার কেন্দ্রে পরিণত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে এবং এটি আমাদের উন্নয়ন কৌশলের একটি শক্তিশালী অংশ।” তিনি জোর দিয়ে জানান, আগামী বছরগুলিতে সন্ধান করতে চলা খনির পরিপ্রেক্ষিতে এই আবিষ্কারটি গুরুত্বপূর্ণ। পাশাপাশি, তেলের ভাণ্ডারের জন্য বিখ্যাত সৌদি আরবের এত বিশাল সোনার খনি তার কোষাগারে একটি উল্লেখযোগ্য সংযোজন হতে পারে বলেও মনে করেন তিনি।

আরও পড়ুন: নতুন বছরে ইতিহাস গড়ল ISRO! লঞ্চ হল XPoSat স্যাটেলাইট, কাজ জানলে হয়ে যাবেন “থ”

সন্ধান মিলতে পারে আরও ভাণ্ডারের: সবথেকে উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, ওই মাইনিং কোম্পানিটি অনুমান করছে যে, যেখানে সোনার ওই ভাণ্ডার আবিষ্কৃত হয়েছে, সেখানে সোনার ঘনত্ব বেশি। এর পাশাপাশি, সংগৃহীত নমুনাগুলি মানসুরা মাসারা থেকে ৪০০ মিটার দূরে এবং তার নিচে দু’টি ড্রিলিং সাইটে ১০.৪ গ্রাম প্রতি টন সোনা এবং ২০.৬ গ্রাম প্রতি টন সোনার উচ্চ-গ্রেড সোনার উপস্থিতি নির্দেশ করে।

আরও পড়ুন: নতুন বছরে বাজারে ধামাকা নিয়ে আসছে OnePlus! লঞ্চ হচ্ছে এই দুর্ধর্ষ ফোন, চমকে দেবে ফিচার্স

এদিকে, এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে সামগ্রিকভাবে সৌদি আরবে সোনার ভাণ্ডারের নতুন আবিষ্কার স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক বিনিয়োগকারীদের আকৃষ্ট করবে বলে অনুমান করা হচ্ছে। এমতাবস্থায়, এখান থেকে হাজার হাজার মানুষের কর্মসংস্থানের সম্ভাবনাও রয়েছে।