ভাইরালআন্তর্জাতিক

প্রেমের টানে হবু শাশুড়িকে কিডনি দান, মা সুস্থ হতেই অন্য একজনকে বিয়ে করল প্রেমিকা

বাংলা হান্ট ডেস্ক: ভালোবাসা কোনো বাধাই মানেনা! এমনকি প্রেমের টানে নানান অসাধ্য সাধনও করে ফেলেন অনেকে। কিন্তু, প্রেমের জোয়ারে হাবুডুবু খেয়ে প্রেমিকার মাকে নিজের কিডনি দান করে দেওয়ার পরও যদি একমাসের মধ্যেই প্রেমিকা অন্য আরেকজনকে বিয়ে করে নেন, এর চেয়ে বেশি দুঃখের ঘটনা আর কি কিছু হতে পারে!

অদ্ভুত মনে হলেও ঠিক এই ঘটনাই ঘটেছে হতভাগ্য এক প্রেমিকের সাথে! শুধু তাই নয়, একটি ভিডিওর মাধ্যমে ওই প্রেমিক তা জানিয়েছেন সকলকে। মেক্সিকোর বাজা ক্যালিফোর্নিয়ার একটি স্কুলে শিক্ষকতা করা উজিয়েল মার্টিনেজ নামের এক ব্যক্তির ওই ভিডিও ইতিমধ্যেই ভাইরালও হয়েছে।

জানা গিয়েছে যে, একটি টিকটক ভিডিওর মাধ্যমে তিনি তাঁর প্রেমিকার কথা তুলে ধরেছেন। সেখানে উজিয়েল বলেছেন যে, তিনি তাঁর প্রেমিকার মাকে তাঁর একটি কিডনি দান করেছিলেন কারণ তিনি ওই প্রেমিকাকে খুব ভালোবাসতেন। কিন্তু প্রেমিকার মায়ের অপারেশনের মাত্র এক মাস পরই তাঁর প্রেমিকা উজিয়েলের সাথে সম্পর্ক ছিন্ন করে অন্য কাউকে বিয়ে করে নেন!

ভিডিওটিতে উজিয়েল আরও বলেছেন যে, তাঁর প্রেমিকার মায়ের অবস্থা খুবই গুরুতর ছিল। তাঁর একটি কিডনি নষ্ট হয়ে যাওয়ায় অবিলম্বে একটি কিডনির দরকার হয়ে পড়ে। উজিয়েল তখন সিদ্ধান্ত নেন যে তিনি তাঁর প্রেমিকার মাকে বাঁচাতে একটি কিডনি দান করবেন।

এরপরই তিনি চিকিৎসকদের সঙ্গে যোগাযোগ করেন এবং তাঁরা সফলভাবে ওই ব্যক্তির প্রেমিকার মায়ের কিডনি প্রতিস্থাপন করে তাঁকে সম্পূর্ণ সুস্থ করে তোলেন। কিন্তু উজিয়েল জানতেন না যে, এর পরে তাঁর সাথে কি হতে চলেছে!

মায়ের অপারেশনের এক মাসের মধ্যেই তাঁর প্রেমিকা উজিয়েলের সাথে সম্পর্ক ছিন্ন করে অন্য কাউকে বিয়ে করে ফেলেন। এদিকে, তাঁর এই ভিডিও প্রকাশ্যে আসার পরই ক্রমাগত উজিয়েলের জন্য দুঃখপ্রকাশ করছেন নেটিজেনরা। ইতিমধ্যেই তাঁর এই ভিডিওটি ১৬ মিলিয়নেরও বেশি বার দেখা হয়েছে। প্রত্যেকেই তাঁকে সান্ত্বনা প্রদানের পাশাপাশি তাঁর এই মহান আত্মত্যাগের জন্য প্রশংসাও করেছেন।

Related Articles

Back to top button