কোন বোঝাপড়ায় মলদ্বীপ থেকে সেনা সরানোয় সম্মত হল ভারত? জল্পনা বাড়ালো মুইজ্জু সরকার

বাংলা হান্ট ডেস্ক: প্রথম থেকেই ভারত বিরোধীতায় মত্ত দ্বীপরাষ্ট্রের চীনপন্থী প্রেসিডেন্ট মহম্মদ মুইজ্জু (Mohamed Muizzu)। ‘ইন্ডিয়া আউট’ নীতিকে হাতিয়ার করেই গদিতে বসেছিলেন মুইজ্জু। দ্বীপরাষ্ট্রে মোতায়েন থাকা ৮৮জন ভারতীয় সেনাকে মালদ্বীপ (India-Maldives) ছাড়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন সেদেশের সরকার। ইতিমধ্যেই এই বিষয়ে দ্বিপাক্ষিক আলোচনাও হয়েছে মালদ্বীপ এবং নয়া দিল্লির মধ্যে।

   

এর আগে মালদ্বীপ সরকার জানিয়েছিল দ্বীপাক্ষিক এই বৈঠকে মালদ্বীপ থেকে সেনা সরাতে সম্মত হয়েছে নয়া দিল্লি। তারপর থেকেই প্রশ্ন উঠছে, ঠিক কোন বোঝাপড়ায় মালদ্বীপ থেকে ভারতীয় আর্মিকে সরাতে রাজি হয়েছে ভারত? এই প্রসঙ্গে মালদ্বীপের কাছে প্রশ্ন রাখা হলে সেদেশের সরকার জানিয়েছে, ভারত-মালদ্বীপের বোঝাপড়ার বিষয়টাকে জনসমক্ষে আনতে রাজি নন তারা।

তবে ভারত তার কথা মত গত ১০ মার্চ ২৫ জন ভারতীয় জওয়ানকে দেশে ফিরিয়ে এনেছে। বাকি আর্মি সৈনিকদেরও দেশে ফেরানোর প্রক্রিয়া চালু রয়েছে বলে খবর। এখানে উল্লেখ্য যে, প্রাকৃতিক দুর্যোগের মধ্যে খাবার, ওষুধের মত প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র পৌঁছানোর জন্য মালদ্বীপকে দুটি হেলিকপ্টার উপহার দিয়েছিল ভারত। তবে ভারতের সাথে তিক্ততা বাড়তেই এই হেলিকপ্টার ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল মালদ্বীপ।

আরও পড়ুন : অধীর গড়ে ফুটবে পদ্ম, হারতে পারেন দিলীপ, মহুয়া! চাঞ্চল্যকর তথ্য জনমত সমীক্ষায়

এমনকি বছর ১৪ এর এক কিশোরের মৃত্যুও হয়‌। সেই ঘটনার পর বেশ ভালোই সমস্যায় পড়তে হয়েছিল মুইজ্জু সরকারকে। তবে এসব কোনোকিছুই চীনপন্থী মুইজ্জুর জেদ কমাতে পারেনি। যদিও কূটনীতিকদের মতে, ভারত বিরোধীতার পেছনে মুইজ্জু নয়, আসল কলকাঠি নাড়ছে চীন। তাই এসব ঘটনা যে মুইজ্জুর সিদ্ধান্তে প্রভাব ফেলবেনা সেকথা বলাই বাহুল্য।

আরও পড়ুন : ওয়াইসির গড়ে তোলপাড়, মিম প্রধানের বিরুদ্ধে লোকসভা প্রার্থী ‘সানিয়া’! কোন দলের হয়ে লড়বেন?

Maldives "instructs" India to withdraw its troops

উল্লেখ্য, সেনা সরানোর সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হওয়ার পর মালদ্বীপে দুই হেলিকপ্টার এবং ডর্নিয়ার বিমান পরিচালনার জন্য প্রযুক্তিবিদ্যায় দক্ষ এমন কিছু ভারতীয় নাগরিক পাঠানো হবে। তবে ভারতের এই প্রস্তাবকেও ঘৃণাভরে নাকচ করেছে মালদ্বীপ। অবশ্য ভারতের কাছে করা প্রায় ৮০০ কোটির ঋণ মকুবের আর্জি জানাতে পিছপা হয়নি মুইজ্জু। দিনকয়েক আগেই দ্বীপরাষ্ট্রের প্রধান জানিয়েছেন, ভারত মালদ্বীপের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ বন্ধু, অতীতেও বহুবার সাহায্য করেছে। তাই তিনি আশা করেন এবারও তাদের ঋণ মকুব করে দেবে নয়া দিল্লি।

Moumita Mondal
Moumita Mondal

মৌমিতা মণ্ডল, গ্র্যাজুয়েশনের পর শুরু নিয়মিত লেখালেখি। বিগত ৩ বছরেরও বেশি সময় ধরে লেখালেখির সাথে যুক্ত। প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর