চরম ভুল করছে BCCI, এখনই সতর্ক না হলে আরও ফাইনাল হারতে হবে! সাবধানবাণী ইরফানের

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্কঃ এই মুহূর্তে ভারতীয় দল (Indian Cricket Team) আগামী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের (2024 T20 World Cup) জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে। ওডিআই বিশ্বকাপের (2023 ODI World Cup) ফাইনালে পরেই অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে (India vs Australia) একটি পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের অংশগ্রহণ করেছিল ভারতীয় দল। মূলত তরুণ ক্রিকেটারদের নিয়ে অনভিজ্ঞ অস্ট্রেলিয়া দলের বিরুদ্ধে এই সিরিজে ৪-১ ফলে জয় পেয়েছে তারা।

   

win team india t20

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে দলের প্রস্তুতিতে কোন ফাক রাখতে চাই না বিসিসিআই (BCCI)। এরপর ভারতীয় দল উড়ে যাচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে (India’s Tour of South Africa)। ডিসেম্বর মাসে সেখানে প্রথমে টি-টোয়েন্টি সিরিজ এবং তারপর ওডিআই সিরিজ এবং বছর শেষে এবং বছরের শুরুতে দুটো টেস্ট ম্যাচ খেলবে ভারত। কিন্তু তার আগে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের একটি সিদ্ধান্ত করা সমালোচনা করলেন ইরফান পাঠান (Irfan Pathan)।

ভারতীয় দল এই প্রথমবার কোনও সফরে কোনও চোট আঘাতের সমস্যার কারণ ছাড়াই তিন ফরম্যাটে তিন ভিন্ন অধিনায়ক নির্বাচিত করেছে। দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে টি-টোয়েন্টি সিরিজের দায়িত্ব রয়েছেন সূর্যকুমার যাদব ওডিআই ফরম্যাটে নেতৃত্ব দেবেন লোকেশ রাহুল এবং টেস্ট ফরম্যাটে মাঠে ফিরবেন রোহিত শর্মা।

আরও পড়ুন: ৩০ দিনের মধ্যে কোহলিকে শতরানের রেকর্ড ভাঙবে শান্ত! আত্মবিশ্বাস ভরা গলায় হুঙ্কার বাংলাদেশ ভক্তদের

আর এই সিদ্ধান্ত নিয়ে চরম বিরোধিতা করছেন ইরফান পাঠান। আলাদা আলাদা ফরম্যাটে আলাদা আলাদা অধিনায়ক থাকার বিষয়টির পক্ষপাতিত্ব করছেন না তিনি। ভারতকে ২০০৭ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জেতানো তারকা ফাস্ট বোলার বলেছেন যে তিনি এই সিদ্ধান্তের সঙ্গে একমত নন।

আরও পড়ুন: হাতে নেই কোহলি বা রোহিত! দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে মান বাঁচাতে BCCI-এর সবচেয়ে বড় ভরসা এই তারকা

তিনি বলেছেন চলতি বছরের শুরুতে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটের নেতৃত্বের দায়িত্বে ছিলেন হার্দিক পান্ডিয়া। আর ২০২২ এর শুরুতে সীমিত ওভারের ফরম্যাট গুলিতে লোকেশ রাহুল এবং শিখর ধাওয়ানকেও নেতৃত্বের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল বিশেষ বিশেষ ক্ষেত্রে। তার মতে এই অবস্থাগুলি দলে সুস্থিতি আসতে দেয় না।