সাবধান, ‘বাংলার বাড়ি’ কিনে বিক্রি করলে করতে হবে হাজতবাস! সতর্ক করলেন খোদ মেয়র

বাংলা হান্ট ডেস্ক : রাজ্যের এক জনপ্রিয় প্রকল্প হল ‘বাংলার বাড়ি’ (Banglar Bari), যার অধীনে রাজ্যের দিন দুঃখি মানুষদের মাথার ছাদ তৈরি করে দেয় রাজ্য সরকার (State Government)। আর এবার সেই বাড়ি নিয়েই বড় ঘোষণা কলকাতার মেয়রের (Kolkata Mayor)। সূত্রের খবর, এই প্রকল্পের অধীনে নির্মিত কোনও বাড়ি অন্য কাউকে বিক্রি করলে আইনি ব্যবস্থা নেবে কলকাতা পুরসভা (Kolkata Municipality)। মেয়র সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, এই বাড়ি কেনা ও বেচা দুটোই সমান অপরাধ।

   

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বহুদিন যাবৎ আটকে রয়েছে ‘আবাস যোজনা’র টাকা। কেন্দ্রের ব্যাখ্যা, বাংলায় আবাস যোজনা প্রকল্পের পেছনে লুকিয়ে রয়েছে দুর্নীতির পাহাড়‌। যদিও রাজ্য সরকার তা মানতে নারাজ। রাজ্য আর কেন্দ্রের আচকাআচকির মাঝে আটকে রয়েছে টাকা। এমন পরিস্থিতিতে রাজ্য সরকার নিজ উদ্যোগে নিয়ে আসে ‘বাংলার বাড়ি’ (Banglar Bari) প্রকল্পটি।

এই প্রকল্পের আওতায় সরকারি টাকায় বাড়ি পাচ্ছেন অনেকেই। তবে সেখানেও নাকি শুরু হয়েছে দুর্নীতি। বাংলার একাধিক জায়গায় নাকি লটারির মাধ্যমে বিক্রি করে দেওয়া হচ্ছিল এইসব বাড়ি‌। অল্প টাকায় বাড়ি তৈরি করে তা চড়া দামে বিক্রি করা হচ্ছে বলে খবর। আর এবার এই তছরুপ রুখতেই এই কড়া সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মেয়র ফিরহাদ হাকিম‌ (Firhad Hakim)।

আরও পড়ুন : তৈমুরও ফেইল, মাত্র ৪ দিন বয়সেই হয়ে উঠল ‘হিরোইন’! ইয়ালিনিকে নিয়ে সুখবর শোনালেন শুভশ্রী

তিনি জানিয়েছেন, ‘বাংলার বাড়ি’ প্রকল্পের আওতায় তৈরি হওয়া বাড়ি বিক্রি ও কেনার কাজে একইরকম শাস্তি মিলবে। তার কথায়, ‘‌মানুষের জন্য বাংলার বাড়ি প্রকল্প চালু করেছে রাজ্য সরকার। কেউ কেউ সরকারি প্রকল্পের বাড়ি নিয়ে পরে সেটা চড়া দামে বিক্রি করে দিচ্ছেন। সরকার থেকে বাংলার বাড়ি যাদের হাতে তুলে দেওয়া হচ্ছে, তারা যদি সেই বাড়ি বিক্রি করেন, তাহলে সেই ব্যক্তির বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে। জেল পর্যন্ত যেতে হতে পারে। সরকারের দেওয়া সম্পত্তি কখনওই বিক্রি করা যাবে না। উত্তরাধিকার সূত্রে শুধু হস্তান্তর হবে। আর কেউ না থাকলে সেই সম্পত্তি রাজ্য সরকারের কাছে ফেরত আসবে।’‌

আরও পড়ুন : ‘প্রবীণদের প্রয়োজন রয়েছে তবে…’, রাজনীতিতে বয়সের ঊর্ধ্বসীমা নিয়ে সোজাসাপ্টা অভিষেক

banglar bari

তারপর থেকেই উত্তাল হয়ে রয়েছে বঙ্গ রাজনীতি। এর সাথেই ফিরহাদ হাকিমের আরও সংযোজন, ‘‌বাংলার বাড়ি বিক্রি করা হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠে এসেছে। গরিব মানুষের জন্য সরকার বাড়ি তৈরি করছে। এই বাড়িগুলি কেউ বিক্রি করতে পারেন না। আর তা করলে সেটা বেআইনি। এমনকী বিক্রেতার কাছ থেকে যিনি কিনবেন তাদের টাকাও জলে যাবে। কারণ বাংলার বাড়ি কেনা –বেচা দুই দণ্ডনীয় অপরাধ। এই বাড়ি ১৫ বছরের জন্য লিজে দেওয়া হয়। রাজ্যের সর্বত্রই এই নির্দেশিকা জারি করা হচ্ছে।’‌