‘প্রতারণা হচ্ছে’, তৃণমূল কর্মীর বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলায় তার স্ত্রীকেই সাক্ষী পুলিশের, ‘থ’ বিচারপতি

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ গত অগাস্ট মাসে নদিয়া (Nadia) জেলার এক তৃণমূল কর্মীর (Trinamool Congress Leader) বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ (Rape Allegation) ওঠে। শুক্রবার সেই মামলা কলকাতা হাইকোর্টে (Calcutta High Court) উঠলে পুলিশের কাণ্ডে রীতিমতো ‘থ’ হয়ে যান বিচারপতি। এদিন ভরা এজলাসে বসেই পুলিশের কর্মকাণ্ড নিয়ে রীতিমতো বিস্মিত বিচারপতি জয় সেনগুপ্ত (Justice Jay Sengupta)।

কারণ কি?

   

জানা যায়, যেই তৃণমূল কর্মীর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ তার স্ত্রীকেই মামলায় সাক্ষী করেছে পুলিশ। যা দেখে অবাক বিচারপতি। পাশাপাশি অগস্ট মাসের ধর্ষণের এই ঘটনায় কেন এখনো নির্যাতিতার পোশাক বাজেয়াপ্ত করা হয়নি? এদিন সেই প্রশ্নও তোলে হাইকোর্ট।

আরও পড়ুন: ‘খই ভাজ’, CBI-কে তোপ! দেবরাজের বাড়িতে তল্লাশি নিয়ে যা বলে ফেললেন ধৃত কুন্তল…

অভিযোগের উপর অভিযোগ

এদিন মামলাটি হাইকোর্টে উঠলে মামলাকারীর পক্ষের আইনজীবী জানান, ঘটনায় অভিযুক্ত ব্যক্তির স্ত্রীকেই ঘটনার সাক্ষী করেছে পুলিশ। শুধু তাই নয়, আরও অভিযোগ উল্টে নির্যাতিতার পরিবারেরই এক সদস্যের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে মামরা দায়ের করা হয়েছে।

tmc highcourt

আরও পড়ুন: ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘মিগজাউম’, ৭ জেলায় হাই অ্যালার্ট জারি করল IMD, আবহাওয়ার বড় আপডেট

মামলার পরবর্তী শুনানি আগামী ১৩ ডিসেম্বর

সমস্ত ঘটনা শুনে বিরাট ক্ষোভ প্রকাশ করেন বিচারপতি সেনগুপ্ত। বিচারপতির মন্তব্য, ‘এটা তদন্তের নামে প্রতারণা হচ্ছে।” পাশাপাশি বিচারপতির নির্দেশ, কেস ডাইরি নিয়ে তদন্তকারী আধিকারিককে পরবর্তী শুনানিতে উপস্থিত থাকতে হবে। এই মামলার পরবর্তী শুনানির দিন আগামী ১৩ ডিসেম্বর ধার্য হয়েছে।

 

 

সম্পর্কিত খবর