পুজোয় উত্তরবঙ্গ ভ্রমণ হবে আরও সহজ ও সস্তা, বড় উদ্যোগ নিল NBSCT! চালু হচ্ছে এই বিশেষ সুবিধা

   

বাংলাহান্ট ডেস্ক : পুজোর আগে বড় চিন্তা ভাবনা শুরু করল উত্তরবঙ্গ পরিবহন নিগম। পুজোর সময় যাতে উত্তরবঙ্গের পর্যটকদের অসুবিধা না হয় সেই কথা মাথায় রেখে ঢেলে সাজানো হচ্ছে পরিষেবা। ইতিমধ্যেই পুজোর মরশুমে বুক হয়ে গেছে দার্জিলিং-জলপাইগুড়ির অধিকাংশ হোটেল। হোটেল মালিকরা আশা করছেন, এ বছর পুজোর সময়কার ভিড় ছাপিয়ে যেতে পারে অতীতের রেকর্ডকেও।

সেই কথা মাথায় রেখে উত্তরবঙ্গ পরিবহন নিগম চাইছে পুজোর সময় অতিরিক্ত বাস পরিষেবা দিতে। নিগম সূত্রে জানা যাচ্ছে, কলকাতা থেকে বাসের সংখ্যা বৃদ্ধি করার কথা ভাবনা হচ্ছে শিলিগুড়ি, কোচবিহার ও আলিপুরদুয়ারের। NBSTC এর এই রুটগুলিতে বর্তমানে চলছে সাতটি বাস। আশা করা হচ্ছে সেই সংখ্যাটা পুজোর সময় গিয়ে দাঁড়াবে দশে।

আরোও পড়ুন : মুর্শিদাবাদ থেকে মক্কা, তাও আবার সাইকেলে! বয়সকে হেলায় হারিয়ে হজ যাত্রায় প্রৌঢ়

অন্যদিকে, পুজোর সময় কলকাতা থেকে উত্তরবঙ্গে ঘুরতে যাওয়া পর্যটকদের সুবিধার জন্য ছোট ছোট শাটল পরিষেবা শুরু করতে চলেছে NBSTC (North Bengal State Transport Corporation)। ছোট রুটের এই শাটেল বাস পরিষেবাগুলি দার্জিলিং, সিকিম, ডুয়ার্সে যাবে বাগডোগরা বিমানবন্দর, নিউ জলপাইগুড়ি স্টেশন এবং শিলিগুড়ির তেনজিং নোরগে বাসস্ট্যান্ড থেকে।

আরোও পড়ুন : শুধুমাত্র ইন্টারভিউতেই চাকরি, সুবর্ণ সুযোগ দিচ্ছে কলকাতা পুরসভা! তাড়াতাড়ি করুন আবেদন

কসবার পরিবহন ভবনে নিগমের পরিচালন পরিচালন পর্যদের বৈঠক ছিল। সংস্থার চেয়ারম্যান পার্থপ্রতিম রায় জানান এই বৈঠকেই সিদ্ধান্তগুলি নেওয়া হয়েছে। এছাড়াও সংস্থার চেয়ারম্যান জানিয়েছেন হোয়াটসঅ্যাপ ও অনলাইন মাধ্যমে বুক করা যাবে এই বাসগুলি। ফলে, যারা ট্রেনের টিকিট নিয়ে দুশ্চিন্তা করছেন তারাও শান্তিতে বেড়াতে পারবেন।

Indian Bus

 

এছাড়াও জানা যাচ্ছে, উত্তরবঙ্গ পরিবহন নিগম বিভিন্ন সংস্থার সাথে যৌথভাবে ডিসেম্বর পর্যন্ত বিভিন্ন ট্যুর প্যাকেজ পরিচালনা করবে। প্যাকেজ ভিত্তিক এই ট্যুরে দার্জিলিং, ডুয়ার্স এবং সিকিম ভ্রমণের সুবিধা থাকবে। এদিনের বৈঠক শেষে নিগম চেয়ারম্যান আরো জানান ভবিষ্যতে তাদের প্যাকেজে যোগ করা হবে মুর্শিদাবাদ জেলাকেও।

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর