টাইমলাইনবিশেষ

নজীর গড়লেন এই ডাক্তার, গরিবদের জন্য খুললেন মাত্র ১ টাকার ক্লিনিক

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ ১৪ ফেব্রুয়ারি উড়িষ্যায় সম্বলপুর জেলার এক চিকিৎসক গরিব এবং বঞ্চিতদের চিকিৎসার জন্য ১ টাকার ক্লিনিক খুলেছেন। ‘বীর সুরেন্দ্র সাঁই ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সাইন্সেস অ্যান্ড রিসার্চ” এর মেডিসিন বিভাগের সহায়ক প্রোফেসর শঙ্কর রামচন্দানি বুরলা কসবায় এই ক্লিনিক খুলেছেন। সেখান রোগীদের চিকিৎসার জন্য মাত্র এক টাকা নেওয়া হয়।

রামচন্দ্রানি (৩৮) বলেন, গরিব আর বঞ্চিতদের বিনামূল্যে চিকিৎসা দেওয়ার জন্য তিনি দীর্ঘদিন ধরে ইচ্ছুক ছিলেন আর সেই ইচ্ছে পূরণ করার জন্যই তিনি এই ক্লিনিক খুলেছেন। চিকিৎসক বলেন, ‘আমি বীর সুরেন্দ্র সাঁই ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সাইন্সেস অ্যান্ড রিসার্চ সেন্টারে সিনিয়র রেজিডেন্ট হিসেবে কাজ শুরু করেছিলাম, আর সেই কারণে ব্যক্তিগত ক্লিনিক খোলার অনুমতি ছিল না আমার, এই কারণে সেই মুহূর্তে আমি ১ টাকার ক্লিনিক শুরু করতে পারিনি। সম্প্রতি আমার পদন্নোতি হয়েছে আর আমি সহায়ক প্রোফেসর হয়েছি। পদন্নোতি হওয়ার পর আমি ব্যক্তিগত ক্লিনিক খোলার জন্য স্বাধীন, আর এই কারণে আমি ভাড়ার দোকান নিয়ে ক্লিনিক শুরু করেছি।”

ওনাকে যখন জিজ্ঞাসা করা হয় যে, তিনি এক টাকা কেন নেন? তিনি বলেন, ‘আমি গরিব এবং বঞ্চিতদের থেকে ১ টাকা নিই, কারণ আমি চাইনা যে তাঁরা এটা ভাবুক যে তাঁদের বিনামূল্যে চিকিৎসা পরিষেবা দেওয়া হচ্ছে। তাঁদের এটা বোঝা দরকার যে তাঁরা চিকিৎসার জন্য কিছু টাকা অন্তত দিয়েছে।” বুরলার কাচ্চা মার্কেট এলাকায় এই ক্লিনিক সকাল ৭ টা থেকে ৮ টা পর্যন্ত আর বিকেল ৬ টা থেকে ৭ টা পর্যন্ত খোলা থাকবে।

রামচন্দ্রানি বলেন, আমার স্ত্রী শিখা রামচন্দ্রানি একজন দন্ত চিকিৎসক আর তিনিও আমার সাহায্য করেন। এই ক্লিনিক শুক্রবার উদ্বোধন করা হয় এবং প্রথম দিনে ৩৩ জন রোগী ওনার ক্লিনিকে এসেছিল। এক কুষ্ঠ রোগীকে কোলে তুলে তাঁর বাড়িতে পৌঁছে দেওয়ার জন্য ২০১৯ সালে তিনি শিরোনামে উঠে এসেছিলেন। চিকিৎসক বলেন, ‘আমার প্রয়াত পিতা ব্রহ্মানন্দ রামচন্দ্রানি আমাকে নার্সিং হোম খোলার জন্য বলেছিলেন, কিন্তু নার্সিং হোম খোলার জন্য বড় বিনিয়োগের প্রয়োজন ছিল। আর সেখানে সেখানে গরিবদের ১ টাকায় চিকিৎসা করা সম্ভব ছিল না। এই কারণে আমি নার্সিং হোম না খুলে ১ টাকার চিকিৎসালয় খুলি।

Back to top button