fbpx
টাইমলাইনভারত

মানুষ খুনে যে শাস্তি প্রাপ্য, পশুদের ক্ষেত্রেও তাই হওয়া উচিত! হাতি খুনে এবার গর্জে উঠলেন রতন টাটা

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ কেরলের (kerala) বাজিভর্তি আনারস (pineapple) খাইয়ে গর্ভবতী হাতি (elephant) খুনের বিরুদ্ধে এবার গর্জে উঠলেন ভারতের বিজনেস টাইকুন রতন টাটা (ratan tata)। সামাজিক মাধ্যম টুইটারে তিনি দোষীদের শাস্তির দাবি করেছেন।

 

কেরলের মালাপ্পুরম জেলায় বাজিভর্তি আনারস খাইয়ে হত‍্যা করা হল এক গর্ভবতী হাতিকে। সেই ঘটনার ভিডিও সোশ‍্যাল মিডিয়ায় আগুনের মত ছড়িয়ে পড়ার পর নিন্দার ঝড় উঠেছে দেশজুড়ে। সাধারন মানুষ থেকে তারকা সকলেই ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন এই পাশবিক ঘটনা দেখে। আঁকা ছবি, কার্টুন, লেখায় বারে বারে উঠে আসছে হাতিটির প্রতি মানুষের অত‍্যাচারের কথা। এবার ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন রতন টাটাও।

সামাজিক মাধ্যমে তিনি লেখেন, তিনি স্তম্ভিত! এই ভাবে একদল মানুষের একটি গর্ভবতী হাতিকে আনারসে বাজি ভরে হত্যা করল। দোষীদের অপরাধ মানুষ খুনের মতই, তাই মানুষ খুনের সমান সাজাই তাদের প্রাপ্য।

সোশ্যাল মিডিয়ায় গোটা ঘটনার বিবরণ দিয়েছেন ফরেস্ট অফিসার মোহন কৃষ্ণণ। তাঁর আবেগঘন লেখাটি পড়ে চোখ ভিজেছে সকলের। মোহন লিখেছেন, “ওর মুখের ভিতর বারুদ ঠাসা অনারসটা বিস্ফোরণ হওয়ার পরেও বোধহয় ও ঠিক বুঝতে পারেনি কী হয়েছে ওর সঙ্গে। তীব্র জ্বালা যন্ত্রনায় গোটা গ্রাম ঘুরে বেরিয়েছে। কিন্তু একটা বাড়িও ভাঙেনি। কোনও লোককে আক্রমণ করেনি। ও এমনই ছিল। সহজ-সরল। সবাইকে বিশ্বাস করত। তবে নিঃসন্দেহে ও বুঝেছিল অন্তিম সময় এগিয়ে এসেছে। আর তখন নিশ্চয় সবার আগে গর্ভস্থ সন্তানের কথাই মাথায় এসেছিল ওর।”

কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনরাই বিজয়ন ইতিমধ্যে এই হাতি খুনে পদক্ষেপ নিয়েছে বলে জানা গিয়েছে। যে বা যারা অপরাধীদের সন্ধান দিতে পারবে তার জন্য ৫০ হাজার টাকা পুরস্কার রয়েছে।

Back to top button
Close
Close