হাতে সময় নেই বেশি দিন! ১৫ এপ্রিল থেকে বদলে যাবে স্মার্টফোনের নিয়ম, বন্ধ হবে এই প্রয়োজনীয় পরিষেবা

বাংলা হান্ট ডেস্ক: ডিপার্টমেন্ট অফ টেলিকম প্রায়শই দেশে (India) স্মার্টফোন সংক্রান্ত নতুন নতুন নিয়ম সামনে আনে। এমতাবস্থায়, এবার একটি গুরুত্বপূর্ণ আপডেট সামনে এসেছে। জানা গিয়েছে যে, এবার আগামী ১৫ এপ্রিল থেকে পরবর্তী আদেশ না দেওয়া পর্যন্ত USSD-Based কল ফরওয়ার্ড নিষ্ক্রিয় করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

   

এছাড়াও নির্দেশে, DoT জানিয়েছে যে, বিকল্প হিসেবে, এটি পরে পুনরায় চালু করা যেতে পারে। তবে, বর্তমানে ১৫ এপ্রিলের পর এটিতে পরিবর্তন আনার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। উল্লেখ্য যে, USSD পরিষেবা ব্যবহার করতে গ্রাহকরা স্ক্রিনে একটি কোড ডায়াল করেন। বর্তমানে এই পরিষেবাটি মোবাইল ফোনের IMEI নম্বর এবং ব্যালেন্স চেক করতে ব্যবহৃত হয়।

Smartphone rules will change from April 15.

মূলত, প্রতারণা ও অনলাইন অপরাধ রোধে এই নির্দেশ নেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। গত ২৮ মার্চ সামনে আসা এই নির্দেশে DoT জানিয়েছে যে, আনস্ট্রাকচার্ড সাপ্লিমেন্টারি সার্ভিস ডেটা (USSD) আনওয়ারেন্টেড অ্যাক্টিভিটির জন্য ব্যবহার করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন: ১ এপ্রিল থেকেই বড় পরিবর্তন! লাফিয়ে বাড়বে ৮০০ ওষুধের দাম, ফের টান পড়বে পকেটে

অর্থাৎ, এখন আর স্মার্টফোনে এই সুবিধা উপলব্ধ হবে না। এমতাবস্থায়, USSD-Based কল ফরওয়ার্ডিং পরিষেবা আগামী ১৫ এপ্রিল ২০২৪ থেকে বন্ধ করা হচ্ছে। তবে, এই সুবিধা কতদিন বন্ধ থাকবে তা এখনও স্পষ্ট করা হয়নি। কিছু সময় পরেই এটি পুনরায় চালু করা যেতে পারে। বর্তমানে এর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট দিকগুলি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

আরও পড়ুন: “মহাকাশে ভারত যা করছে তা বিস্ময়কর”, ISRO-র সাফল্যে অবাক ইউরোপিয় মহাকাশ সংস্থা! উঠল প্রশংসার ঝড়

সাইবার ক্রাইম বন্ধে নেওয়া হয়েছে সিদ্ধান্ত: উল্লেখ্য যে, এই সরকারি সংস্থার পক্ষ থেকে নেওয়া এমন সিদ্ধান্ত এই প্রথম নয়। এর আগেও সিম কার্ড ইস্যু করার ক্ষেত্রে একই ধরণের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। যেখানে বলা হয়েছিল, নতুন সিম কার্ড পেতে হলে ই-ভেরিফিকেশন করতে হবে। তার মানে ফিজিক্যাল ভেরিফিকেশন বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তবে, এবার USSD-Based কল ফরওয়ার্ড বন্ধ করার সিদ্ধান্তও নেওয়া হয়েছে।

Sayak Panda
Sayak Panda

সায়ক পন্ডা, মেদিনীপুর কলেজ (অটোনমাস) থেকে মাস কমিউনিকেশন এবং সাংবাদিকতার পোস্ট গ্র্যাজুয়েট কোর্স করার পর শুরু নিয়মিত লেখালেখি। ২ বছরেরও বেশি সময় ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর