ঋণ নিয়েও এবার চিনকে বয়কট এই দেশের! ভারতেরই পাশে দাঁড়িয়ে বেজিংয়ের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি

বাংলাহান্ট ডেস্ক : এই দেশ সম্প্রতি এমন পদক্ষেপ নিয়েছে যাতে কোণঠাসা হতে পারে চীন। দেশটির এই পদক্ষেপ শুনে গোটা বিশ্ব চমকে গেছে। অনেকের মনেই এবার প্রশ্ন উঠতে পারে এমন কোন দেশ রয়েছে যা চীনের মতো শক্তিশালী একটি দেশকে কোণঠাসা করতে পারে? এক বছরের জন্য চীনা গুপ্তচর জাহাজগুলিকে তাদের বন্দরে ডকিং করতে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে শ্রীলঙ্কা সরকার।

   

শ্রীলঙ্কা সরকার এই নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে গত ১ জানুয়ারি।  শ্রীলঙ্কা সরকারের এই সিদ্ধান্তের ফলে শ্রীলঙ্কার বন্দরে থামতে পারবে না ভারত মহাসাগরে (Indian Ocean) গুপ্তচরবৃত্তিকারী চিনের জাহাজগুলি। আন্তর্জাতিক মহল মনে করছে এই সিদ্ধান্ত শ্রীলঙ্কা সরকারের একটি বড় জয়।

আরোও পড়ুন : লক্ষ্য দলে কম বয়সী মেয়েদের যুক্ত করা! বিজেপির ডাকে ভোটের আগে রাজ্যজুড়ে হবে যুবতী সম্মেলন

পরোক্ষভাবে বারবার ভারত সরকারের পক্ষ থেকে  শ্রীলঙ্কাকে জানানো হয় ভারত মহাসাগরে ‘গবেষক’ নামে চীনের জাহাজগুলি গুপ্তচরবৃত্তি করছে। ভারত সরকারের সতর্কবার্তার পর এই নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে শ্রীলঙ্কা সরকার। চীনের কাছে বিপুল পরিমাণ ঋণের সাগরে ডুবে রয়েছে শ্রীলঙ্কা।

আরোও পড়ুন : এবার নতুন রেশন কার্ড তৈরি হবে মাত্র কয়েক মিনিটেই! অবাক লাগছে? দেখে রাখুন নয়া পদ্ধতি

সেই সুযোগে চীন শ্রীলঙ্কার বন্দরগুলিতে তাদের গুপ্তচর জাহাজগুলিকে রাখছিল। চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের (Xi Jinping) যে ভূ-রাজনৈতিক উচ্চাকাঙ্ক্ষা রয়েছে, মনে করা হচ্ছে শ্রীলঙ্কার এই নিষেধাজ্ঞা তাতে বড় আঘাত হানবে। বারংবার ভারত সরকারের কাছে খবর আসছিল চীন ভারতের উপর বিভিন্নভাবে নজরদারি করছে।

img 20240105 014148

এগুলোর মধ্যে অন্যতম হল সমুদ্রের মাধ্যমে নজরদারি। ঋণের জালে জড়িয়ে শ্রীলঙ্কার হাম্বানটোটা বন্দরকে দখল করে চীন। ২০২৪ সালে চীন জিয়াং ইয়াং হং ৩ নামের আরও একটি গুপ্তচর জাহাজ কলম্বোতে পাঠানোর পরিকল্পনা করছিল। তবে তার আগেই শ্রীলঙ্কা সরকার এই নিষেধাজ্ঞা জারি করল।

 

সম্পর্কিত খবর