অকাল বৃষ্টিতে ব্যাপক ক্ষতি চাষে, চাষিদের পাশে দাঁড়াচ্ছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার! এইভাবে পাবেন ক্ষতিপূরণ

বাংলাহান্ট ডেস্ক : অতীতে শীতের শুরুতে সামান্য বৃষ্টিপাতের সাক্ষী বহুবার থেকেছে পশ্চিমবঙ্গ। এমনকি দার্জিলিঙে তুষারপাতের আগে বৃষ্টিপাত হয়ে থাকে। তবে এ বছর ডিসেম্বর মাসে শীতের শুরুতে একটানা দু-তিন দিনের বৃষ্টিতে বেশ ক্ষতি হয়েছে চাষের। নিম্নচাপ মিগজাউ-এর প্রভাবে দু তিন দিন হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত হয়েছে পশ্চিমবঙ্গের একাধিক জেলায়।

   

এর ফলে বিশেষ করে ক্ষতি হয়েছে বাংলার চাষীদের। এই সময়টাতে ধান কেটে ঘরে তোলার মরশুম। অন্যদিকে, রোপন করা হয় আলু বীজ। পাশাপাশি রয়েছে একাধিক শীতকালীন সবজির চাষ। কিন্তু ডিসেম্বর মাসের অকাল বৃষ্টিতে ক্ষতি হয়েছে এই সব ফসলের। ফলে ব্যাপক সমস্যায় পড়েছেন বাংলার চাষীরা।

আরোও পড়ুন : প্রথম পাঁচে উঠছে নতুনদের নাম! TRP তালিকা থেকে ছিটকে যাচ্ছে একসময়ের হিটরা, এবার বড় বদল

বাংলার কৃষকদের আর্থিক অবস্থা পাঞ্জাব, হরিয়ানা কৃষকদের মতো স্বচ্ছল নয়। বাংলার অধিকাংশ কৃষক ছোট ছোট জমিতে চাষ করে জীবন নির্বাহ করেন। বাংলার কৃষকরা একটু বেশি নির্ভরশীল শীতকালীন চাষের উপর। কিন্তু ডিসেম্বর মাসে অকাল বৃষ্টিতে ধান, আলু, সবজি চাষে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। এমন অবস্থায় বাংলার কৃষকদের পাশে দাঁড়াতে এগিয়ে এলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আরোও পড়ুন : ভুলে যান সিকিম, ভুটানের মার্কেট! জলের দরে শীত পোশাক পাবেন এবার কলকাতার এই বাজারেই

আলিপুরদুয়ারের একটি সভা থেকে মুখ্যমন্ত্রী জানান, ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকেরা ক্ষতিপূরণের টাকা পাবেন বাংলা শস্য বিমা প্রকল্পের আওতায়। প্রসঙ্গত, বাংলা শস্য বিমা প্রকল্প শুরু করা হয়েছে রাজ্যের কৃষকদের কথা ভেবে। কৃষকদের এই বিমার প্রিমিয়াম দিতে হয় না। কৃষকদের শুধু উপযুক্ত নথি দেখিয়ে পূরণ করতে হয় আবেদন পত্র।

State Government,West Bengal,Farmer,Rainfall,Financial Help,Winter,পশ্চিমবঙ্গ,রাজ্য সরকার,কৃষক,Bangla,Bengali,Bengali News,Bangla Khobor,Bengali Khobor

এখনো যারা বাংলা শস্য বিমা নিজেদের নাম নথিভুক্ত করেননি তারা আগামী দুয়ারে সরকারের ক্যাম্পে এই কাজ করতে পারবেন। যে সকল কৃষকদের এই প্রকল্পে নাম নথিভুক্ত রয়েছে তাদের সরকারের পক্ষ থেকে দেওয়া হবে ক্ষতিপূরণ। সব মিলিয়ে কিঞ্চিত স্বস্তি মিলবে চাষীদের।