আরও কোণঠাসা হবে চিন! একদম নাকের ডগায় মেগাপ্ল্যান্টের পরিকল্পনা টাটা গ্রুপের, ঘুম উড়ল বেজিংয়ের

   

বাংলা হান্ট ডেস্ক: বর্তমান সময়ে একের পর এক গুরুত্বপূর্ণ ক্ষেত্রে চিনকে (China) টেক্কা দিচ্ছে ভারত (India)। শুধু তাই নয়, ব্যবসায়িক ক্ষেত্র ছাড়াও উৎপাদনের দিকেও এখন চিনের সাথে চলছে সমানে সমানে টক্কর। মূলত, “আত্মনির্ভর ভারত” গড়ার লক্ষ্যকে সামনে রেখেই বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে সরকার। আর তাতে প্রত্যক্ষভাবে সহযোগিতা করছে দেশীয় সংস্থাগুলি। এইভাবেই শক্তিশালী হচ্ছে দেশের অর্থনৈতিক পরিকাঠামো।

এমতাবস্থায়, এবার একটি বড় খবর সামনে এসেছে। এই প্রসঙ্গে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী জানা গিয়েছে যে, চিনকে আরও কোণঠাসা করতে গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ গ্রহণ করছে টাটা গ্রুপ। এই প্রসঙ্গে জানিয়ে রাখি যে, এতদিন ধরে মোবাইল যন্ত্রাংশের মতো গুরুত্বপূর্ণ জিনিসগুলি চিন সহ অন্যান্য দেশ থেকে আমদানি করতে হতো। কিন্তু এবার ভারতেই স্মার্টফোনের পাশাপাশি দেশীয়ভাবে চিপসেট তৈরির পরিকল্পনা গ্রহণ করা হচ্ছে।

Once again China got a big shock

সেই লক্ষ্যকে সামনে রেখেই, ভারত-চিন সীমান্তবর্তী রাজ্যে টাটা গ্রুপ একটি চিপ প্রসেসিং প্ল্যান্ট স্থাপন করতে পারে বলে জানা গিয়েছে। সবথেকে উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, এজন্য টাটার পক্ষ থেকে ইতিমধ্যেই প্রস্তাব পর্যন্ত জমা দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি আরও জানা গিয়েছে যে, এই প্ল্যান্ট নির্মাণে প্রায় ৪০,০০০ কোটি টাকা ব্যয় করা হবে টাটার তরফে।

আরও পড়ুন: ইঞ্জিন, ব্রিজ, টাওয়ারের পর এবার সিগন্যাল কেবল চুরি! বিহারে আড়াই ঘণ্টা ধরে ব্যাহত রেল পরিষেবা

এমতাবস্থায় প্রশ্ন উঠতে পারে, এই প্ল্যান্টটি কোথায় তৈরি হবে? সামনে এসেছে সেই উত্তরও। জানা গিয়েছে, আসাম রাজ্যের জাগিরোডে একটি ইলেকট্রনিক সেন্টার স্থাপনের জন্য আবেদন জমা দিয়েছে টাটা ইলেকট্রনিক্স লিমিটেড। ইতিমধ্যেই এই বিষয়ে টাটা গ্রুপ একটি সেমিকন্ডাক্টর অ্যাসেম্বলি এবং প্যাকেজিং প্ল্যান্টের জন্য আসাম সরকারের সাথেও আলোচনা করেছে।

আরও পড়ুন: চাকরিপ্রার্থীদের জন্য সুখবর! শূন্যপদে নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি জারি রেলের, এভাবে করুন আবেদন

এমন পরিস্থিতিতে, অনুমান করা হচ্ছে যে, আগামী এক থেকে দুই মাসের মধ্যেই এই প্রকল্প অনুমোদন পেতে পারে। এর ফলে আসামে প্রায় ১,০০০ কর্মসংস্থান হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। উল্লেখ্য যে, টাটা ভারতের বৃহত্তম iPhone অ্যাসেম্বলি প্ল্যান্ট নির্মাণের পরিকল্পনা নিয়েও কাজ করছে। ইতিমধ্যেই, তারা তামিলনাড়ুর হোসুরে iPhone কারখানা তৈরির ঘোষণাও করেছে। আর এইভাবেই একের পর এক ক্ষেত্রে প্রত্যক্ষভাবে চিনকে ধাক্কা দিচ্ছে ভারত।

Sayak Panda
Sayak Panda

সায়ক পন্ডা, মেদিনীপুর কলেজ (অটোনমাস) থেকে মাস কমিউনিকেশন এবং সাংবাদিকতার পোস্ট গ্র্যাজুয়েট কোর্স করার পর শুরু নিয়মিত লেখালেখি। ২ বছরেরও বেশি সময় ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর