এবার Apple-কে বড় ধাক্কা দিল চিনের এই “শত্রু”! iPhone সাপ্লায়ারকে দেওয়া হল কড়া নির্দেশ

   

বাংলা হান্ট ডেস্ক: এবার ভিয়েতনামের (Vietnam) তরফে Apple-এর সাপ্লায়ারকে কঠোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। Apple-এর সাপ্লায়ার Foxconn-কে ভিয়েতনামের কর্তৃপক্ষ বিদ্যুৎ খরচ কমাতে বলেছে। রয়টার্সের রিপোর্টে বলা হয়েছে যে, ওই সংস্থাকে বিদ্যুতের ব্যবহার ৩০ শতাংশ কমাতে বলা হয়েছে। দেশের উত্তরাঞ্চলে অবস্থিত অ্যাসেম্বলি প্ল্যান্টগুলির জন্য এই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলেও জানা গিয়েছে।

মূলত, গত বছর বিদ্যুৎ সঙ্কটের পরিপ্রেক্ষিতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এর পাশাপাশি, অন্যান্য কোম্পানিকেও বিদ্যুৎ সাশ্রয় করতে বলা হয়েছে। এই তালিকায় একাধিক ম্যানুফ্যাকচারার সামিল রয়েছে। উল্লেখ্য যে, গত বছরের বিদ্যুৎসঙ্কটের কারণে দেশের অর্থনীতিকে ব্যাপক ক্ষতির মুখে পড়তে হয়।

This "enemy" of China gave a big shock to Apple.

এদিকে, এই বিষয়ে একজন আধিকারিক জানান, কোম্পানির কাছে এই বিষয়ে অনুরোধ করা হয়েছে এবং কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। তবে, এতে উৎপাদনে কোনো প্রভাব পড়বে না। উল্লেখ্য যে, ভিয়েতনামের পক্ষ থেকে বহু বহুজাতিক কোম্পানিকেও আমন্ত্রণ জানানো হচ্ছে।

আরও পড়ুন: গম্ভীরকে টেক্কা দিয়ে হরভজন হবেন টিম ইন্ডিয়ার প্রধান কোচ? নিজেই সামনে আনলেন আসল সত্যি

মূলত, ভিয়েতনাম চিনে স্থিত ট্র্যাডিশনাল ম্যানুফ্যাকচারিং ভাঙতে চায়। Apple ভিয়েতনামে তার সাপ্লায়ারদের সংখ্যাও বাড়িয়েছে। এর আগে কোম্পানির ২৫ টি সরবরাহকারী ছিল। সেই সংখ্যা এখন বেড়ে ৩৫ হয়েছে। অর্থাৎ, এক্ষেত্রে দ্রুত বৃদ্ধি ঘটেছে।

আরও পড়ুন: হয়ে যান সতর্ক! SBI, ICICI Bank, Axis Bank এবং PNB সাবধান করল গ্রাহকদের, নাহলেই হবে…..

ভারতে Foxconn: এই প্রসঙ্গে জানিয়ে রাখি যে, Foxconn-এর তরফে ভারতীয় বাজারের দিকেও অনেক মনোযোগ দেওয়া হচ্ছে। এর অন্যতম প্রধান কারণ হল ভারত সরকার কর্তৃক গৃহীত সিদ্ধান্ত। এই কোম্পানিটি কর্ণাটকেও এই বিষয়ে বিনিয়োগ করেছিল। সংস্থাটি HCL-এর সাথে সহযোগিতায় তার নতুন প্ল্যান্টও শুরু করে। আর এইভাবেই iPhone তৈরিতে নতুন নজির তৈরি করে ভারত। অর্থাৎ, সোজা কথায় এখন ভারতের পক্ষ থেকে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে, যা দেশের অর্থনীতির জন্য ইতিবাচক দিক বজায় রাখে।

Sayak Panda
Sayak Panda

সায়ক পন্ডা, মেদিনীপুর কলেজ (অটোনমাস) থেকে মাস কমিউনিকেশন এবং সাংবাদিকতার পোস্ট গ্র্যাজুয়েট কোর্স করার পর শুরু নিয়মিত লেখালেখি। ২ বছরেরও বেশি সময় ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর