এবার ভয়ঙ্কর জঙ্গি হানা পেশোয়ারে! বহু হতাহতের আশঙ্কা, ভয়ে তটস্থ গোটা পাকিস্তান

বাংলা হান্ট ডেস্ক: সাম্প্রতিক সময়ে পাকিস্তানে (Pakistan) প্রতিনিয়ত রক্তক্ষয়ী সন্ত্রাসবাদী হামলার ঘটনা ঘটছে। যার ফলে ঘটছে প্রাণহানির ঘটনাও। এক কথায়, দরিদ্র পাকিস্তান এখন সন্ত্রাসবাদী হামলায় জর্জরিত। পাকিস্তান যাদের লালন-পালন করেছিল সেই সন্ত্রাসবাদীরাই এখন দেশের ঘুম উড়িয়েছে। সর্বশেষ ঘটনায়, পাকিস্তানের উত্তর-পশ্চিম পেশোয়ারে সন্ত্রাসবাদী হামলার খবর পাওয়া গেছে।

   

ওই হামলায় ৬ জন শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী জানা গিয়েছে যে, শুক্রবার অজ্ঞাত সন্ত্রাসীবাদীরা পাকিস্তানের অশান্ত খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশের একটি থানার নির্মাণ সাইটে কর্মরত অন্তত ৬ জন শ্রমিককে গুলি করে হত্যা করেছে। পুলিশ এই তথ্য জানিয়েছে।

This time a terrible terrorist attack in Peshawar Pakistan

কি জানা গিয়েছে: পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ওয়াজিরিস্তানের ওয়ানা জনজাতি জেলায়। পুলিশের মতে, শ্রমিকরা যখন তাঁদের তাঁবুতে ছিলেন তখন সন্ত্রাসবাদীরা তাঁদের ওপর হামলা চালায়। দক্ষিণ ওয়াজিরিস্তান জেলা পুলিশ অফিসার ফরমানউল্লাহ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন এবং বলেছেন যে পুলিশ প্রতিটি কোণ থেকে বিষয়টি তদন্ত করছে। এদিকে, এখনও পর্যন্ত কোনো গোষ্ঠী এই হামলার দায় স্বীকার করেনি। উল্লেখ্য যে, গত অগাস্ট মাসে ওই একই জেলায় সন্ত্রাসবাদী হামলায় অন্তত ১১ জন শ্রমিক নিহত হন।

আরও পড়ুন: গতি বাড়বে ন্যশানাল হাইওয়েতে, বড় পদক্ষেপ নিচ্ছে সরকার! এবার থেকে এত স্পিডে চালানো যাবে গাড়ি

সম্প্রতি খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশে হামলার ঘটনা ঘটেছে: এর আগে গত মঙ্গলবার, সন্ত্রাসবাদীরা পাকিস্তানের খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশের একটি পুলিশ স্টেশনে শক্তিশালী হামলা চালায়। ওই হামলায় অন্তত ৬ জন নিরাপত্তাকর্মী নিহত হন। পাশাপাশি, আহত হন প্রায় ১৬ জন। আধিকারিকরা এই তথ্য সামনে আনেন।

আরও পড়ুন: বিশ্বজুড়ে “রাজ” করবে ভারতের হাতিয়ার! এই দেশ কিনতে চলেছে আকাশ এয়ার ডিফেন্স সিস্টেমের ১৫ টি ইউনিট

কিভাবে ঘটেছে হামলা: জানা গিয়েছে, দক্ষিণ ওয়াজিরিস্তানের ওয়ানা জনজাতি জেলার সীমান্তবর্তী অশান্ত ডেরা ইসমাইল খান জেলার দারবান থানায় আত্মঘাতী বোমা হামলা চালানো হয়। সন্ত্রাসীবাদীরা বিস্ফোরক বোঝাই একটি গাড়ি পুলিশ স্টেশনের বিন্ডিংয়ে ঢুকিয়ে মর্টার দিয়ে হামলা চালায়। পুলিশ জানিয়েছে, হামলার পর নিরাপত্তা বাহিনী ও হামলাকারীদের মধ্যে গুলি বিনিময়ে অন্তত ৬ জন নিরাপত্তাকর্মী নিহত হন এবং ১৬ জন আহত হয়েছেন।

সম্পর্কিত খবর