কলকাতার থিম এবার দেখা যাবে জেলাতেও! ফুচকার মণ্ডপ হবে চন্দননগরে, আর বাকিগুলো?

   

বাংলাহান্ট ডেস্ক : কলকাতার দুর্গাপুজো মানেই থিমের জোরদার লড়াই। কেউ ফেলে দেওয়া সামগ্রী দিয়ে মণ্ডপ বানিয়ে সবাইকে তাক লাগিয়ে দিয়েছে। আবার কেউ ফুচকা দিয়ে মন্ডপ বানিয়ে স্তম্ভিত করেছে দর্শনার্থীদের। দুর্গাপুজোর পর এবার বিভিন্ন জেলায় পৌঁছাতে চলেছে কলকাতার এই থিমের মন্ডপগুলি।

দুর্গাপুজোয় তৈরি এই মন্ডপগুলি এবার দেখা যাবে জেলার কালীপুজো ও জগদ্ধাত্রী পুজোয়। দুর্গাপুজোর সময় তৈরি করা মন্ডপগুলি নিয়ে যাওয়ার জন্য ইতিমধ্যেই পুজো কমিটিগুলির সাথে জেলার পুজো কমিটিগুলির উদ্যোগতারা কথা শুরু করেছেন। এমনকি শুরু হয়েছে দরদাম। সূত্রের খবর কলকাতার কয়েকটি মন্ডপ কোথায় যেতে চলেছে তাই ইতিমধ্যে স্থির হয়ে গেছে।

 

পূর্ব মেদিনীপুরের নন্দকুমারে সুরুচি সঙ্ঘের মণ্ডপ যেতে পারে। পুজোর সম্পাদক স্বরূপ বিশ্বাস নন্দকুমারের একটি পুজো কমিটির সাথে কথা বলেছেন। বেহালার নতুন দল এবার দুর্গাপুজোয় ফুচকা দিয়ে মন্ডপ তৈরি করে তাক লাগিয়ে দিয়েছিল সবাইকে। জানা যাচ্ছে ফুচকার মণ্ডপ এবার যেতে পারে চন্দননগরের একটি জগদ্ধাত্রী পুজোয়।

আরোও পড়ুন : আসছে গরিবের বন্দে ভারত! সামনে এল পাঁচটি নয়া রুটের খবর, বাংলায় কোন পথে ছুটবে?

পুজো উদ্যোক্তারা গোটা মন্ডপ খুলে নিয়ে চলে যাচ্ছেন। প্রশিক্ষণ দেওয়ার পর বহুদিন ধরে বেহালার নতুন দল শিল্পীদের দিয়ে এই ফুচকার মণ্ডপ তৈরি করে। এই মন্ডপ তৈরিতে লেগেছিল প্রায় ৮০ হাজার ফুচকা। এছাড়াও চন্দননগরে যেতে পারে তেলেঙ্গাবাগান ও সমাজসেবীর পুজো মণ্ডপ।

আরোও পড়ুন : এক ভুলেই সর্বনাশ রেলের! যাত্রীকে দিতে হল ৬০ হাজার; দেখুন কীভাবে আপনিও পেতে পারেন এই টাকা

জানা যাচ্ছে, নদিয়ায় যাচ্ছে কলেজ স্কোয়ার সর্বজনীনের পুজো। মাইসোর প্যালেসের ধাঁচে তৈরি মণ্ডপ যাবে শান্তিপুরের রাশ উৎসবে। গুজরাটের সোমনাথ মন্দিরের আদলে তৈরি আহিরিটোলা সর্বজনীনের মণ্ডপ চাকদা যাচ্ছে। তেঘরিয়ায় একটি কালীপুজোয় দেখা যাবে হরিদেবপুরের ৪১-এর পল্লীর মণ্ডপ।

1664509011 uluberia

দমদম পার্ক তরুণ সঙ্ঘের মণ্ডপ হয়ত যেতে পারে চন্দননগরের। চালতাবাগান লোহাপোট্টির পুজো মন্ডপ যেতে পারে কাঁথির একটি কালীপুজোয়। তবে এদের মধ্যে সব থেকে মহার্ঘ্য মন্ডপ হতে চলছে চোরবাগান সর্বজনীন। তারা তাদের মণ্ডপ বিক্রির জন্য ৩৫ লক্ষ টাকা দাম হেঁকেছে। সব মিলিয়ে বলা যায়, এবার জেলার পুজোগুলোও নজর কাড়বে।

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর