অস্ট্রেলিয়ায় চূড়ান্ত অপমান পাকিস্তানকে! এয়ারপোর্টে নেই কেউ, ট্রাক ডেকে কুলির কাজ করতে হলো বাবরদের

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্কঃ তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে ইতিমধ্যেই অস্ট্রেলিয়া পৌঁছে গিয়েছে পাকিস্তান (Pakistan Cricket Team)। এর আগে তারা কোনওদিনও অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে সিরিজ জিততে পারেনি। নতুন অধিনায়ক, নতুন কোচিং স্টাফ নিয়ে এবার তাদের সামনে রয়েছে সেই অসম্ভবকে সম্ভব করার লক্ষ্য। কিন্তু অস্ট্রেলিয়া বনাম পাকিস্তান (Australia vs Pakistan) এই সিরিজ আরম্ভ হওয়ার আগে ওই দেশে পৌঁছ না পাকিস্তান ক্রিকেট দলকে যেভাবে অভ্যর্থনা জানানো হলো তা দেখে চমকে গেছে গোটা ক্রিকেট বিশ্ব।

কড়া চ্যালেঞ্জ পাকিস্তানের সামনে:

   

ভারতের মাটিতে বিশ্বকাপে শোচনীয় পারফরম্যান্স করার পর বাবর আজম (Babar Azam) অধিনায়কত্ব থেকে সরে গিয়েছেন। তিনি এখন শুধুমাত্র ক্রিকেটার হিসেবেই দলে রয়েছেন এবং তার ভূমিকাটাও অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। পাকিস্তানের নতুন অধিনায়কের দায়িত্ব টেস্ট ফরম্যাটে পালন করছেন শান মাসুদ (Shan Masood)। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার পৌঁছে প্রথমেই যে ঘটনা ঘটলো তাতে তার মনোবলও ধাক্কা খেতে পারে।

কেউ আসেনি অভ্যর্থনা জানাতে:

সাধারণত সফরে আসা কোনও দলকে সাহায্য করতে সেই দেশের ক্রিকেট বোর্ড বা সেই দেশে উপস্থিত সফলকারী দলের দূতাবাসের কর্মীরা উপস্থিত থাকে। কিন্তু বাবরদের অভ্যর্থনা জানাতে কেউই উপস্থিত ছিল না। ব্যাপারটা উপলব্ধি করে কিছুটা হকচকিয়ে যায় স্কোয়াডের সকল সদস্য।

আরও পড়ুন: বিশ্বকাপ হারের ক্ষত এখনও তাজা, BCCI-এর কাছে T20 ও ODI থেকে বিশ্রাম চাইলেন কোহলি! আশঙ্কায় ভক্তরা

ভাড়া করা হলো ট্রাক:

শেষ পর্যন্ত নিজেদের উদ্যোগে একটি ট্রাক ভাড়া করতে হয় পাকিস্তান ক্রিকেট দলকে। তাদের বাহন এসে উপস্থিত হলে মালপত্র নিজেরাই সেই ট্রাকে তোলেন পাক ক্রিকেটাররা। উইকেট রক্ষক ও তারকা ব্যাটার মহম্মদ রেজওয়ান বাকি সকল সদস্যকে সাহায্য করেন তাদের মালগুলি ট্রাকে বোঝাই করার জন্য।

আরও পড়ুন: এই কাজ না করলে T20 বিশ্বকাপ জিতবে না ভারত! সৌরভের বক্তব্য শুনে চিন্তায় রোহিতরা

হালকাভাবে দেখছে না অস্ট্রেলিয়া:

এই পাকিস্তান দল এই মুহূর্তে সমস্যায় জর্জরিত হলে অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটাররা তাদের হালকাভাবে দেখছেন না। তারকা অজি ওপেনার ওসমান খাওয়াজা জানিয়েছেন যে তার ধারণা এই যে পাকিস্তান দলটা অস্ট্রেলিয়া সফরে ‘বেনো-কাদির’ সিরিজ খেলতে পৌঁছেছে তারা অস্ট্রেলিয়া সফরে ইতিপূর্বে আশা পাকিস্তান দল গুলোর চেয়েও ব্যাটিংয়ের দিক দিয়ে অনেক শক্তিশালী। বাবর আজম বনাম স্টিভ স্মিথ দ্বৈরথ উপভোগ করতেও খাওয়াজা মুখিয়ে রয়েছেন। তার মতে লড়াই হাড্ডাহাড্ডিই হবে।